28 April 2017
g+ tw Chapaibarta Faceook Page
Chapaibarta.com


সাহিত্যে সার্কের মৈত্রী বন্ধনে

Published:  
সাহিত্যে সার্কের মৈত্রী বন্ধনে

গত ১৫’মে অনুষ্ঠিত হলো ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরে সাহিত্যে সার্কের মৈত্রী বন্ধনের এক নান্দনিক সাহিত্য উৎসব। তিন দেশের সাহিত্য প্রেমীগণ এ উৎসবে যোগদানে কবি লেখকগণ অপার আন্তরিকতার আবেগে ভাসলেন। সেই সাথে আরো যোগ দেন ভারতের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে ছুটে আসা প্রায় তিন শতাধিক সাহিত্যিকগণ। সাহিত্য সংগঠন “রোববারের আড্ডার আয়োজনে” হিরক জয়ন্তী আর্ন্তজাতিক এ সাহিত্য উৎসবে পশ্চিমবঙ্গের বঙ্গরতœ বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ অধ্যাপক আনন্দ গোপাল ঘোসের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের লেখিকা ও দৈনিক যুগান্তর সৈয়দপুর প্রতিনিধি সৈয়দা রুখসানা জামান শানু, বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের খ্যাতনামা কবি সরোজ দেব, নেপালের লেখক রাজেন্দ্র গুরাগাঁই,কবি রিষাভ দেব ঘিমিরে, সুভাদরা ভাট্টারায়, ভারতের খ্যাতনামা লেখক নিশিকান্ত সিন্ধসঢ়;্ধসঢ়;হা, বৃন্দা বন ঘোষ, সমীর রায়, অশেষ কুমার দাস, পুষ্পিতা মন্ডল,অরূনেশ্বর দাস, নিতাই চন্দ্র সরকার, নির্মল দত্ত, ডা: বাসু দেব, বিশ্বনাথ লাহা,গোবিন্দ তালুকদার, অরুণ চক্রবর্তী, লক্ষ্মী নন্দী, বিপ্লব পাল, নির্মলেন্দু দাস,রঞ্জন চৌধুরী, পৌরসভার চেয়ারম্যান কানাইয়া লাল আগারওয়াল, সুশান্ত নন্দি ওমনোনিতা চক্রবর্তী প্রমূখ।বাংলাদেশের লেখিকা সৈয়দা রুখসানা জামান শানু তার বক্তব্যে সাহিত্যের মৈত্রীর বার্তা তুলে ধরে বলেন, সাহিত্য মানবাধিকারের কথা বলে, বিশ্ব ভাতৃত্বের কথা বলে, মানবতার কথা বলে, ভালবাসার কথা বলে।সাহিত্যের আঙ্গীনায় কোন প্রাচীর দেয়া নেই.. নেই কোন কাঁটাতারের বেড়া। যেখানে রয়েছে শুধুই অকৃত্রিম বন্ধুত্ব, ভালবাসা আর ¯েœহের শীতলছায়া। নান্দনিক এবং মৌলিক এ সৃজনশীল নিদর্শন সাহিত্যেই পাওয়া যায়।তাই সাহিত্যের উৎকর্ষতায় বড় অবলম্বন আমাদের জীবন ও সমাজ গঠনের জন্য।তিনি আরো বলেন, সমৃদ্ধের সাথে এ সাহিত্য চর্চা আগামী প্রজন্মের জন্য সংরক্ষিত হওয়া অতীবও প্রয়োজন। এ লক্ষ্যে আমাদের সকলের আন্তরিকসহযোগীতা ও নিবেদিত প্রচেষ্টা এবং ভারতের সরকারী-বেসরকারী পৃষ্ট-পোষকতায় একটি আলোকিত ভবিষ্যৎ বিনির্মাণে ইসলামপুরে একটি আন্তর্জাতিক সাহিত্য চর্চা কেন্দ্র স্থাপিত হওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

তিনি ভারত সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে এবং শ্রদ্ধা রেখে একটি আবদার করেন। আর সেটি হচ্ছে, ভারত অথবা বাংলাদেশ ভ্রমনের জন্য ব্যবসায়ী,সাহিত্যিক এবং সাংবাদিকদের যখন মালটিপাল ভিসা ই¯্যু করা হয়, সেসময় নির্দিষ্ট একটি বোর্ডার রুট উল্লেখ না করে সব কয়টি বোর্ডার ব্যবহার করার জন্য উল্লেখ করা থাকলে পর্যটকদের যাতায়াতের জন্য বিড়ম্বনা এড়িয়ে প্রয়োজনূযায়ী বোর্ডার ব্যবহারে সুবিধে হতো।কবি ও প্রকাশক এবং সমাজকর্মী সৈয়দা রুখসানা জামান শানু দু’বাংলার মধ্যে সৌহার্দ্য, সংহতি ও মৈত্রী সর্ম্পক গড়ে তোলার লক্ষ্যে দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে উদ্দ্যেগী হয়ে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। গত ১৫মে রোববার হিরক জয়ন্তী আর্ন্তজাতিক এ সাহিত্য উৎসবে সামিল হয়ে তিনি মৈত্রীর বার্তা তুলে ধরেন। ইসলামপুর পৌরসভা কক্ষে অনুষ্ঠিত এ সাহিত্য উৎসবে ১১’জন গুণী কবি সাহিত্যিকদের উত্তরী পরিয়ে ও সাহিত্য সম্মান পত্র এবং সাহিত্য সম্মান পদকসহ সংবর্ধনা দেয় হয়। সংবর্ধনার মঞ্চে ‘রোববারের সাহিত্য আড্ডার’সভাপতি কবি নিশিকান্ত সিন্ধসঢ়;্ধসঢ়;হার কাব্যগ্রন্থ ‘অর্নিবাচিত কথাগুলো হা-হুতাস করে’, লেখক অরুণ সরকারের ‘শোঁয়াপোকা’ এবং বাংলাদেশের কবি সৈয়দা রুখসানা জামান শানুর কাব্যগ্রন্থ ‘ভালোবাসা’এ তিনটি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়।