26 February 2017
g+ tw Chapaibarta Faceook Page
Chapaibarta.com


তাহিতি ফারজানার কবিতা

Published:  30 November 2015
তাহিতি ফারজানার কবিতা
শিল্পীর প্রতি.. জিজ্ঞাসা.. ঘ্রাণ..

শিল্পীর প্রতি..

মাংসের নিচে ঢেকে রাখে শুভ্র অভিমান, মানুষেরা
স্ব স্ব নেশায় ভুলে থাকে সম্বোধন।
মেক আপ তুলে ফেলো
আদিম মুখশ্রীতে ভিড় করে বসুক দুর্বল পঙতি
জন্মকথা মেশানো দিনে নির্বাসিতদের আশ্রয় হও তুমি।

আশ্চর্য রঙে ছলকে উঠুক মদের গ্লাস
মুখভর্তি ধোঁয়া, কুয়াশা, এরপর ছোঁয়াচে শীত।
আগে বর্ষা থামাও, থামাও গাড়ির হর্ন।
পদধ্বনি ভেঙে প্রশ্নবোধক চিহ্ন
ভুলে থাকো এই নৈরাশ্য, আত্মসমর্পণ।

জানো তো, বিশ্বব্রহ্মান্ড পথ হাঁটছে তোমার দেখাদেখি।

.........................................................................................................................................

জিজ্ঞাসা

আমি কি আরোপিত?
কোন প্রলেপ, খেরোখাতা ছাপিয়ে পিঁপড়ের খুনসুটি
একা শীতকাল আমি!
স্ববিরোধী, আছি কোথাও?
সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে, থাকুক নিজের প্রতি।

আমি, আমি সম্ভবত বিস্তীর্ণ বালিতে নোনা পদক্ষেপ
ঘুমগ্রস্ত সংকেত, জোড়া লাগছি সেলাই মেশিনের অহংকারে।
চালকবিহীন বিমান থেকে ঝুঁকে
আমি কি আত্মহত্যাপ্রবণ?
বর্ণে বর্ণে লুট হয়ে ছলকে উঠি শব্দে।

                 উল্লেখ্য, যেকোনো শব্দকে আমার কবিতা মনে হয়।

                                                                                                                                               ...................................................................................................................................................
 

ঘ্রাণ

কিছু নির্দেশ করে না যে ঘ্রাণ
তন্দ্রার মাঝখানে চিরন্তন-
বড়শিতে আটকানো যায় না তাকে।

অসময় ভোর- চোখ খুলে খুলে
তাকানোর ভান করে ঘুমিয়ে পড়ছে
জোড় হাতে কি চাইছে?
যা চাইছে, কেন চাইছে!

পথের মুখে শুভ্র আকাশ 
ফুলের মতো ছড়িয়ে আছে
নিজেকে লুকোতে পারঙ্গম যে
তাকে কুড়ানো যায় না, খুব জানি।

ব্যাখ্যা ছিঁড়ে ব্যঞ্জনাহীন ঊর্ধ্বে উঠে যেতে চাই
সম্প্রতি মস্তিষ্ক থেকে বর্ষিত হচ্ছে নগ্ন তরবারি
প্রচ্ছন্ন সাঁতারে কিছু চাইছে।

হতে পারে সে শৈত্যপ্রবাহ বা সাক্ষাৎ ধ্বস
আমি তাকে ক্ষুধা নামে ডাকি।

সর্বশেষ খবর