29 May 2017
g+ tw Chapaibarta Faceook Page
Chapaibarta.com
ছাত্রলীগ সম্পাদককে মারপিট ।। রাজশাহী মেডিকেল কলেজের চার ছাত্র নিষিদ্ধ

ছাত্রলীগ সম্পাদককে মারপিট ।। রাজশাহী মেডিকেল কলেজের চার ছাত্র নিষিদ্ধ

রাজশাহী: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মীর্জা কামালকে মারপিটের ঘটনায় চার শিক্ষার্থীকে ক্যাম্পাস থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। যাদের দুইজনকে স্থানীভাবে ও দুইজনকে তিন মাসের জন্য বহিস্কার করা হয়। একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় তাদের বহিস্কার করার সিদ্ধান্ত হয় বলে জানান রামেক উপাধ্যক্ষ নওশাদ আলী।

বহিস্কার শিক্ষার্থীদের মধ্যে, এমবিবিএম ৫৩তম ব্যাচের কাজী আরমান, সৌমিক সালমানকে স্থায়ীভাবে ক্যাম্পাস থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। অপর দুইজন ৫৩তম ব্যাচের মিনহাজুল আবেদিন ও ৫৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মতুর্জা এলাহীকে তিন মাসের জন্য ক্যাম্পস থেকে বহিষ্কার হয়। তবে তারা একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন। কিন্তু তারা ক্যাম্পাসে অবস্থান করতে পারবেন না।

দুপুরে আয়োজিত একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রামেকের অধ্যক্ষ প্রফেসর গোলাম হাবিব, উপাধ্যক্ষ নওশাদ আলী, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার প্রমূখ।

উপাধ্যক্ষ নওশাদ আলী বলেন, এমবিবিএম ৫৩তম ব্যাচের কাজী আরমান ও সৌমিক সালমান ইতোমধ্যেই ছাত্রজীবন শেষ করেছেন। তবে তারা পরীক্ষায় ফেল করার কারণে তারা হোস্টেলে অবস্থান করছে। তারা আর ক্যাম্পাসে থাকতে পারবেন না। তাদের ক্যাম্পাসের বাহিরে থেকে পরবর্তী পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ৫৩তম ব্যাচের মিনহাজুল আবেদিন ফাইনাল পরীক্ষা শেষে এখন ইন্টার্নি করছেন। সে পিংকু হোস্টেলে তাকে। তিন মাস মিনহাজুল আবেদিনের হোস্টেলে থাকতে পারবেন না। এ তিন মাস মিনহাজুল আবেদিন বাহিরে থেকে ইন্টার্নি করবেন। হাসপাতালে ইন্টার্নি করে বাহিরে চলে যাবে। সে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারবে না।

আর ৫৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মতুর্জা এলাহী তিন মাসের জন্য ক্যাম্পাস ও হোস্টেল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এ তিন মাস সে ক্যাম্পাসে থাকতে পারবে না। ক্লাসের সময় সে ক্লাস করে ক্যাম্পাসের বাহিরে চলে যাবে। তিন মাস পর তার চলাফেরা পর্যালচনা করে পরবর্তি সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

রামেক অধ্যক্ষ প্রফেসর গোলাম হাবিব বলেন, একাডেমিক কাউন্সিলের সভা এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। সভার ওই সিদ্ধান্ত নোটিশ জারি করে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২১ মে গভীর রাতে নুরুন্নরি হোস্টেলের ২৩০ নং রুমে প্রবেশ করে রামেক শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মীর্জা কামালকে মারপিট করা হয়। এ ঘটনায় কামাল কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে মঙ্গলবার একাডেমিক কাউন্সিলের সভা ডাকা হয়।

অভিযুক্ত কাজী আরমান, সৌমিক সালমান ও মিনহাজুল আবেদনি ও মতুর্জা এলাহী পিংকু হোস্টেলের ০০৭ নম্বর রুমে থাকতেন। এদের মধ্যে মিনহাজুল আবেদিন রামেক ছাত্রলীগের সহসভাপতি।

এ বিভাগের আরও খবর