30 March 2017
g+ tw Chapaibarta Faceook Page
Chapaibarta.com
দিনেরবেলা হেডলাইট জ্বালিয়ে বাইক-স্কুটার চালাতে হবে এপ্রিল থেকে!

দিনেরবেলা হেডলাইট জ্বালিয়ে বাইক-স্কুটার চালাতে হবে এপ্রিল থেকে!

এ বার দিনের বেলায় হেডলাইট জ্বালিয়েই বাইক বা স্কুটার চালাতে হবে। এবং তা বাধ্যতামূলক। কেন্দ্রীয় সরকারের এমন নির্দেশই কার্যকর হতে চলেছে আগামী এপ্রিল মাস থেকে।

কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, এপ্রিল থেকে যে সব নতুন দু'চাকার গাড়ি রাস্তায় নামবে তার প্রত্যেকটিতে এএইচও (অটোমেটিক হেডল্যাম্প অন) থাকতে হবে। এই একই পদ্ধতি ডিআরএলএস (ডে-টাইম রানিং ল্যাম্পস) নামে ইতিমধ্যেই চার চাকার গাড়ির ক্ষেত্রে আছে। অর্থাত্ গাড়ি স্টার্ট করার সঙ্গে সঙ্গে হেডলাইট জ্বলবে। যাঁদের বাইকে এই ফিচার থাকবে না, তাঁদেরকে ম্যানুয়ালি হেড লাইট জ্বালিয়ে বাইক বা স্কুটার চালাতে হবে।

কিন্তু, দিনেরবেলায় হেড লাইট জ্বালানো হঠাত্ বাধ্যমূলক হল কেন?

দুর্ঘটনা কমাতেই এই ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আগে তো জরুরি ক্ষেত্রে হেডলাইট জ্বালিয়ে গাড়ি চালানোর নিয়ম ছিল। কিন্তু এখন দুর্ঘটনা কমাতে সামনে থেকে আসা গাড়িকে সতর্ক করতেই হেডলাইট জ্বালিয়ে রাখার নিয়ম আনা হচ্ছে। উল্টো দিক থেকে আসা গাড়িকে আসলে জানান দেওয়া, যাতে উল্টো দিকের গাড়ি বুঝতে পারে, এ দিক থেকে একটা বাইক যাচ্ছে। এর ফলে উল্টো দিক থেকে আসা গাড়ির চালক এবং পথচারীরা সতর্ক হয়ে যাবেন। এমনিতে দু'চাকার বাইক ভীষণই দুর্ঘটনাপ্রবণ। সেই দুর্ঘটনা ঠেকাতেই এমন ব্যবস্থা বলে সূত্রের খবর।

সমীক্ষা বলছে, বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ পথ নিরাপত্তা তালিকায় প্রথম সারিতেই রয়েছে ভারত। প্রায় ৫ লক্ষেরও বেশি গাড়ি দুর্ঘটনা ঘটেছে ২০১৫তে। অর্থাত্ বছরে প্রতি ঘণ্টায় ১৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন শুধু মাত্র গাড়ি দুর্ঘটনায়। ইউরোপের বিভিন্ন দেশে দুর্ঘটনা ঠেকাতে ২০০৩ থেকেই এএইচও এব‌ং ডিআরএলএস-এর নিয়ম চালু আছে।

এ বিভাগের আরও খবর