রাজশাহীর তানোরে নিজের প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ : বাবা গ্রেপ্তার

  • Date: August 4, 2018
  • cat
  • | Post By: চাঁপাই বার্তা.কম (M)

তানোর প্রতিবেদকঃ রাজশাহীর তানোরে চৌদ্দ বছরের কিশোরী প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠেছে বাবার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় শনিবার (০৪ আগস্ট) ওই মেয়ের মা বাদী হয়ে তানোর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

এরআগে, শুক্রবার (০৩ আগস্ট) রাতে বিক্ষুপ্ত গ্রামবাসী অভিযুক্ত হেলাল উদ্দীনকে (৩৮) গ্রেপ্তার করে থানা পুলিশের হাতে তুলে দেন।

জানা গেছে, উপজেলার তালন্দ ইউনিয়নের বিলশহর গ্রামের মৃত: রমজান আলীর ছেলে হেলাল উদ্দীন ও তাঁর স্ত্রী এবং এক প্রতিবন্ধী মেয়ে নিয়ে তাদের সংসার। হেলালের স্ত্রী অন্তঃসত্বা। তাই সে তাঁর পিতার বাড়িতে যায়। বাড়ি একা পেয়ে গত এক সপ্তাহ ধরে হেলাল অমানুষিক ভাবে জোরপূর্বক তার প্রতিবন্ধী মেয়েকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে আসছে।

শুক্রবার ওই প্রতিবন্ধী মেয়ে তার পিতার সঙ্গে নানির বাড়ি একই উপজেলার সরনজাই গ্রামে বেড়াতে যায়। সেখানে তাঁর মাকে শারীরিক নির্যাতনের বিষয়টি খুলে বলেন। এবং পিতার সঙ্গে আর বাড়ি ফিরে যেতে আপত্তি করে। বিষয়টি জানার পর সরনজাই গ্রামের লোকজন হেলালকে গণপিটুনি দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করেন। পুলিশ শুক্রবার রাত ১১টার দিকে সরনজাই গ্রাম থেকে হেলালকে আটক করেন।

থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনির উদ্দিন জানান, শুক্রবার রাতে স্থানীয় লোকজনদের সহযোগিতা হেলালকে আটক করা হয়। সে সকলের উপস্থিতিতে তাঁর অপকর্মের দোষ স্বীকার করেছেন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে তানোর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় আটক হেলালকে আদালতের মাধ্যমে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আর ভুক্তভোগী মেয়েটিকে মেডিকেল পরীক্ষা করার জন্য শনিবার দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল (রামেক) কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) স্থানান্তর করা হয় বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

মিজান/জেডএইচএমএম/চাঁপাইবার্তা.কম।।

এই বিভাগের সর্বশেষ খবর