রাজশাহীতে এনজিও কর্মকর্তার সাথে অবৈধ সম্পর্ক, স্ত্রীকে তাড়িয়ে দিলো স্বামী

  • Date: November 24, 2017
  • cat
  • | Post By: চাঁপাই বার্তা.কম (M)

রাজশাহীর দুর্গাপুর সদরে অবস্থিত বেসরকারী এনজিও ইকো সোস্যাল ডেভোলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (ইএসডিও) শাখা ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারীর অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত শাখা ব্যবস্থাপক। এদিকে, ঘটনার পর ভুক্তভোগী ওই নারীকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে তার স্বামী।

জানা গেছে, বেসরকারী এনজিও ইকো সোস্যাল ডেভোলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (ইএসডিও) দুর্গাপুর শাখা ব্যবস্থাপক সোহাগ শাহ চাকুরীর সুবাদে দুর্গাপুর সদরেই বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন। এরই মধ্যে ভুক্তভোগী ওই নারীর সাথে তার অবৈধ সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে দুর্গাপুর সদরের হিন্দুপাড়া এলাকায় ওই নারীর সাথে দেখা করতে তার বাড়ির পাশের একটি বাঁশঝাড়ে যান সোহাগ শাহ। কিন্তু স্থানীয়রা এতো রাতে মানুষের আনাগোনা বুঝতে পেরে ধারনা করেন গরু চুরির উদ্দেশ্যে কেউ বাঁশঝাড়ের মধ্যে লুকিয়ে রয়েছেন। এক পর্যায়ে গ্রামবাসীরা ওই বাঁশঝাড়টি চারদিক থেকে ঘিরে ফেলেন। বিষয়টি বুঝতে পেরে মোটরসাইকেল রেখেই পালিয়ে যান সোহাগ শাহ। তবে ভুক্তভোগী ওই নারীকে আটক করে গ্রামবাসী। গ্রামবাসীর জিজ্ঞাসাবাদে প্রথম দিকে ঘটনার কথা স্বীকার না করলেও এক পর্যায়ে ওই নারী পুরো ঘটনার বর্ণনা দেন গ্রামবাসীর কাছে। বর্ণনা দিতে গিয়ে ওই নারী সোহাগ শাহ’র সাথে সম্পর্ক থাকার বিষয়টি স্বীকার করেন। তবে ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন এনজিও ইএসডিও’র দুর্গাপুর শাখার ব্যবস্থাপক সোহাগ শাহ।

স্থানীয় সুবল চন্দ্র সরকার জানান, কয়েকদিন আগেই এলাকায় তিনজন গরু চোর আটক হয়েছে। এ কারনে গভীর রাতে বাঁশঝাড়ে মানুষের উপস্থিতি বুঝতে পেরে তিনি সন্দেহ করেন গরু চুরির উদ্দেশ্যে কেউ ওই বাঁশঝাড়ে লুকিয়ে রয়েছেন। সন্দেহের সূত্র ধরেই আরো কয়েকজন প্রতিবেশীকে নিয়ে তিনি ওই বাঁশঝাড় ঘিরে ফেলেন। বিষয়টি বুঝতে পেরে সোহাগ শাহ মন্দিরের কাছে মোটরসাইকেল রেখে পালিয়ে যান। ওই নারীও এ সময় পালানোর চেষ্টা করলে তারা তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে পুরো ঘটনার বর্ণনা দেন ওই নারী। মঙ্গলবার সকালে ব্যবস্থাপক সোহাগ শাহ’র মোটরসাইকেলটি তার অফিসের এক কর্মীর মাধ্যমে সোহাগের বাসায় পৌছে দেয়া হয়।

এই বিভাগের সর্বশেষ খবর