আলোকিত ‘দুর্লভপুর ইউনিয়ন’ গড়তে নিবেদিত প্রাণ হয়ে কাজ করছেন চেয়ারম্যান রাজু


বিশেষ প্রতিবেদকঃ বলা চলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার মধ্যে সব চাইতে বড় শিবগঞ্জ উপজেলার দুর্লভপুর ইউনিয়ন। এ ইউনিয়নে সব শ্রেনী পেশার মানুষের বসবাস। সেখানে মোট ভোটার সঙ্খ্যা প্রায় ৪২ হাজার।ইউনিয়নটির আয়াতন শিবগঞ্জ বাজার থেকে শুরু করে পদ্মা নদীর মাঝ পর্যন্ত।পদ্মা পাড়ে বসাবাসকারিরা এক সময়ে নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে মানবেতর জীবন যাপন করলেও বর্তমান সময়ে সে দুর্ভিক্ষ কাটিয়ে উঠেছে তারা। বর্তমানে নিজেদের জমিতে ফলাতে পারছে সোনালী ফসল।যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল হওয়ায় ফলানো ফসল খুব সহজেই বাজারে নিয়ে বিক্রি করছে কৃষক। যেখানে ছিলনা রাস্তা,ঘাট-সেখানে বানানো হয়েছে রাস্তা। যেখানে ছিলনা ব্রীজ -সেখানে বানানো হয়েছে ব্রীজ। সম্প্রতি চাঁপাই বার্তার সঙ্গে আলাপকালে দুর্লভপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও তরুন রাজনিতিবিদ আবদুর রাজিব রাজু জানান, তাঁর পরিষদ নিয়ে কর্মময় জীবনের কথা।

রাজু বলেন, আমি স্বপ্ন দেখি আমার এলাকার মানুষকে নিয়ে। পাশে দাঁড়াতে পছন্দ করি অসহায় ও দরিদ্রদের। সেই স্বপ্ন থেকেই নির্বাচনে দাঁড়ানো। আওয়ামী লীগের রাজনীতি করলেও দল আমাকে মনোনায়ন দেয়নি। জনগনের চাপে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করে বিপুল পরিমান ভোট পেয়ে জয়লাভ করি।তার পরে দায়িত্ব নিয়ে একটি আলোকিত ইউনিয়ন পরিষদ গড়ে তুলতে সবার সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে এলাকার সমস্যা-সম্ভাবনাগুলো চিহিন্ন করে শুরু করি কাজ। প্রথমে উদ্দ্যোগ গ্রহন করি এলাকাকে দারিদ্রমুক্ত করার। এক সময়ে দুর্লভপুর ইউনিয়ে প্রচুর পরিমানে ভিক্ষুক ছিল। তাদেরকে সে পেশা থেকে মুক্ত করা হয়েছে। দেয়া হচ্ছে, বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধী ভাতাসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা। তারা আজ সাবলম্বী।বর্তামানে এলাকার উন্নয়নে প্রতিটি সেক্টরে উন্নয়ন হচ্ছে। বিগত ১৭ বছরে বয়স্ক,বিধবা ও প্রতিবন্ধী ভাতা গ্রহীতার সঙ্খ্যা ছিল ১হাজার ২শ জন। বর্তমানে সে সুবিধা ভোগ করছে ১ হাজার ৮শ জন। শতভাগ বাল্য বিয়ে মুক্ত হয়েছে দুর্লভপুর।

চেয়ারম্যান রাজু আরও বলেন, গেল দেড় বছরে দুর্লভপুর ইউনিয় ব্যপক উন্নয়ন কাজ করা হয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল-জোয়াদ্দার পাড়ার ব্রিজে মাটি ভরাট করে প্রতিরোধ দেয়াল নির্মান করা হয়েছে।জগন্নাথপুর জিন্টু মাষ্টারের বাড়ির কাছে প্রাচীরসহ মাটি ভরাট করে ব্রীজ নির্মাণ করা হয়েছে।দুর্লভপুর-শেরপুর ভান্ডার সড়কের ব্রিজের দুই পাশে মাটি ভরাট করে ভাঙ্গন প্রতিরোধ দেয়াল নির্মান করা হয়েছে।বালুটুঙ্গি নতুন ব্রীজের দুপাশে মাটি ভরাট করা হয়েছে।আট রশিয়া বাজারের আগে বড় করে ড্রেন নির্মান করা হয়েছে। আট রশিয়ার ৫ রশিয়াতে প্রতিরোধ প্রাচির নির্মাণ করা হয়েছে।নামো জগন্নাথপুর এলাকায় ৫টি প্রতিরোধ দেয়াল নির্মাণ করা হয়েছে।দুর্লভপুর মহলদার পাড়ায় প্রতিরোধ দেয়াল নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়া ১২ রশিয়া মাঠ রাস্তায় একটি ব্রিজ নির্মাণ করে মাটি ভরাট করা হয়েছে। বর্তমানে কাজ চলছে-৮ রশিয়া বেড়ি বাঁধ হতে মাড়ওয়ারী পাড়া পর্যন্ত মাটি ভরাট,দুর্লভপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের মূল ফটক নির্মাণ,কালুপুর মফিজ মেম্বারের বাড়ি হতে চামা পাড়া রাস্তা এএইবিবি করণ,কালুপুর আফতাবের বাড়ি হতে পার কালুপুর রাস্তাএএইবিবি করণ,১৫ রশিয়ার মিস্রি পাড়া রাস্তা এএইবিবি করণ,দুর্লভপুর গোয়াল পাড়ার রাস্তা এএইবিবি করণ,বালুটুঙ্গিতে প্রতিরোধ দেয়ালসহ রাস্তা নির্মাণ। তা ছাড়া বিভিন্ন সামাজিক,সাংস্কৃতি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফ্যান,আলমারি সরবরাহ করা হচ্ছে। চারটি প্রতিষ্টানে টয়লেট নির্মাণ করা হয়েছে।বিশুদ্ধ পানি পানের জন্য ৭২টি টিবওয়েল স্থাপন করা হয়েছে। সবগুলো উন্নয়ন করা হয়েছে এলজিএসপি, টিআর, ইজিপিপি, কাবিখা, ও উপজেলা উন্নয়ন তোহবিল থেকে।যাতে মোট ব্যয় হয়েছে প্রায় দেড় কোটি টাকা।

ইউনিয়নের ৩৬টি মসজিদে সোলার প্যানেল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। সব চেয়ে বড় উদাহরণ হচ্ছে মানুষসহ জীবদের রক্ষা করতে ১৮ হাজার ৬শ তাল বীজ লাগানো হয়েছে। এলাকার উন্নয়ন সম্পূর্ণ করতে বর্তমানে জোয়াদ্দার পাড়া থেকে নামো জগন্নাথপুর সাহেবের ঘাট পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণ,ইউনিয়ন পরিষদ হতে চামা ভান্ডার পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণ,আম তলা ঘাট হতে ৮রশিয়া বেড়ি বাঁধ পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণ,৮ রশিয়া বেড়ি বাঁধ হতে বোগলা উড়ি পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণ,পিয়ালিমারি হতে ঘুঘু ডাঙ্গার ৩ কিলোমিটিার রাস্তা নির্মাণ ও ভান্ডার নতুন গ্রাম থেকে ৮ বিঘি পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণ জরূরী প্রয়োজন। এতে প্রয়োজন হবে প্রায় ১২ কোটি টাকা। এছাড়া যে এলাকায় আরও সমস্যা রয়েছে-তা পর্যয়ক্রমে সমাধান করার আশ্বাসও দেন চেয়ারম্যান রাজু। তিনি এলাকার উন্নয়নে সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করার আহবান জানান।


এই বিভাগের আরও খবর

  • বিশ্বজুড়ে আলোচিত বিদ্যুৎ আন্দোলনের রুপকার এমপি গোলাম রাব্বানীর জীবনী

  • দু’বারের সফল মেয়র বিএনপি নেতা হেলিম, গড়বেন সমৃদ্ধির শিবগঞ্জ

  • শিবগঞ্জে আ’লীগের রাজনীতিতে বিকল্প নেই ডাঃ শিমুলের

  • চাঁপাইনবাবগঞ্জের ”প্রত্যাশা মাদকাসক্তি পূনর্বাসন কেন্দ্র” ।। দেড়শ’ মাদকসেবির নতুন জীবন

  •