,


অনাথ আশ্রমে নাবালিকাদের ধর্ষণ করতেন রাম রহিম

দুই নারী ভক্তকে ধর্ষণের মামলায় সাজা হয়েছে ভারতের বিতর্কিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিমের। এখন তিনি ২০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত হয়ে জেলে আছেন। সাজা হওয়ার পরই বেরিয়ে আসছে এই ভন্ড বাবার নানার কুকৃর্তির কথা।

তার আস্তানায় জন্মনিরোধক উপকরণ, অস্ত্র, গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এই ভন্ড বাবা খুন থেকে শুরু করে অবৈধ গর্ভপাত করনো কোনটাই বাদ রাখেননি।

কথিত এই ধর্মগুরু পৈশাচিক লালসা পূরণ করতেন তার আশ্রমে থাকা অনাথ নাবালিকাদের ধর্ষণের মাধ্যমে। সেই ধর্ষণের হাত থেকে রেহাই পেতো না কোন নাবালিকা।

নিজের লালসা পূরণের জন্য তিনি শাহি বেটিয়া নামে একটি আশ্রম তৈরি করেছিলেন। সেখানে রাখতেন অনাথ নাবালিকাদের। আশ্রয় দেয়ার নাম করে তিনি নাবালিকাদের প্রতিদিনই ধর্ষণ করতেন। আর এই ধর্ষণের ফলে কেউ গর্ভবতী হয়ে পড়লে তাকে আশ্রমের ভেতরে থাকা হাসপাতালেই ভর্তি করানো হতো।