Dhaka, Sunday, August 20, 2017

Navigation Bottom Left
Navigation Bottom Right
Post page // Before Title
Post page // Before Title

রাজশাহী ও চাঁপাইবাবগঞ্জের জীবনযাত্রায় ছন্দপতন ।। তীব্র গরমের পর টানা বৃষ্টিপাত

বার্তা ডেস্কঃ রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে তীব্র গরমের পর শুরু হয়েছে শ্রাবণী বর্ষণ। বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) রাত থেকে থেমে থেমে বৃষ্টিপাত হচ্ছে শুক্রবার (১১ আগস্ট) বিকেলেও।

বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা জুড়ে ও রাজশাহী শহরে বিরতি থাকলেও বৃষ্টি হচ্ছে পবা, মোহনপুর, বাগমারাসহ আশপাশের উপজেলাগুলোতে। ফলে ছুটির দিনে প্রধান মহাসড়কগুলো ফাঁকা হয়ে পড়েছে।

মাঝে মাঝে হালকা ও ভারী যানবাহন চলাচল করতে দেখা যাচ্ছে। চলছে কিছু সংখ্যক রিকশা ও ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা। ঘন কালো মেঘে ঢাকা না থাকলেও আকাশটা ঘোলাটে রয়েছে। মাঝে মধ্যে মেঘকে আড়াল করে সূর্য উঁকি দিচ্ছে। এরপর আবারও সূর্যকে আড়াল করে দিচ্ছে মেঘ।

ঝিড়ি ঝিড়ি বৃষ্টিতে পথঘাট কাদায় লেপটে গেছে। নিচু সড়কে জমে গেছে বৃষ্টির পানি। তবে একটানা গরমের পর শেষ শ্রবণের এই বৃষ্টিকে আপাতত স্বস্তির বৃষ্টি হিসেবেই দেখছেন রাজশাহীবাসী। ছুটির দিনে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি নিত্য প্রয়োজনীয় কাজ-কর্মের ছন্দপতন ঘটালেও বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়নি।

রাজশাহী আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের জ্যেষ্ঠ পর্যবেক্ষক লতিফা হেলেন বলেন, বৃষ্টিপাত সব সময় হচ্ছে না। আবার মুষলধারেও হচ্ছে না। থেমে থেমে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। তাই বৃষ্টির পরিমাণ খুব কম।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ১০টা থেকে বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। শুক্রবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত ২৩ দশমিক ৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আকাশে মেঘ আছে। তাই আরও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে বৃষ্টিতে দিনের তাপমাত্রা কমেছে।

শুক্রবার রাজশাহীর সর্বোচ্চ তামপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগে গত ১৮ জুলাই সর্বোচ্চ ৩৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল বলে জানান আবহাওয়া অফিসের এই পর্যবেক্ষক।

Post Page // After Content
Post Page // After Content